fbpx

থাই রাজা আইসোলেশনে, খেপেছেন থাইল্যান্ডের বাসিন্দারা

জার্মানিতে একটি বিলাসবহুল হোটেলে ‘সেলফ আইসোলেশনে’ আছেন থাইল্যান্ডের রাজা মহা ভাজিরালংকর্ন। তাঁর সঙ্গে আছেন ২০ জন ‘হারেম সুন্দরী’ (উপপত্নী)। সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়াও পুরো থাইল্যান্ডজুড়ে রাজার আইসোলেশনে থাকা নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, হোটেলে ৬৭ বছর বয়সী থাই রাজার সাথে গুরুত্বপূর্ণ কর্মচারীরা আছেন তবে থাই রাজার সঙ্গে তাঁর স্ত্রী আছেন কি না, তা এখনও জানা যায়নি। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে রাজা “মহা ভাজিরালংকর্ন” পুরো গ্র্যান্ড হোটেল বুকিং দেয়ার প্রেক্ষিতে খেপেছেন থাইল্যান্ডের বাসিন্দারা। দেশটির হাজারো নাগরিক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এর কড়া সমালোচনা করেছেন। ইতিমধ্যে দেশটির টুইটারে ‘#হোয়াই ডু উই নিড এ কিং’ ট্রেন্ডের তালিকায় উঠেছে।

থাইল্যান্ডে বিধি-বিধান অনুযায়ী রাজার বিরুদ্ধে কেউ অপমান ও সমালোচনা করলে আইনে তাকে ১৫ বছরের জেল শাস্তি দেওয়ার আইন রয়েছে। থাইল্যান্ড সরকার করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে ইতিমধ্যে দেশটিতে সব বিদেশির প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে্ন। পাশাপাশি পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুসহ ৭০ বছরের বেশি বয়সী বৃদ্ধকে বিশেষভাবে বাড়িতে থাকতে উৎসাহিত করা হয়েছে। একই সঙ্গে থাইল্যান্ডজুড়ে জনসমাগম নিষিদ্ধ করা এবং সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখতে বলা হয়েছে। ইতিমধ্যে থাইল্যান্ডে ১ হাজার ৩৮৮ জনের করোনা ধরা পড়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে সাতজনের। দেশটিতে এই মারণ ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

Facebook Comments