fbpx

রোদে পোড়া ত্বক সারানোর পদ্ধতি

বিভিন্ন কারণে আমাদের বাইরে যেতে হয়। আর বাইরে গেলেই মুখোমুখি হতে হয় রোদের। সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৪টার মধ্যে রোদের তীব্রতা বেশি থাকে। আর এই সময় একটানা রোদে থাকলে ত্বক পুড়ে যেতে পারে।

ত্বক ঠিক রাখতে গরম পানির পরিবর্তে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধোয়া জরুরি। রোদের প্রভাবে ত্বকে ট্যান পড়লে, তখন বরফ পানি বা বরফ কুচি ঘষে নিলে ত্বকের ক্ষতি কমানো যায়।তবে চিন্তার কিছু নেই। রোদে পোড়া ত্বককে আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে রয়েছে কিছু ঘরোয়া সমাধান-

লেবুর রস, শসা আর গোলাপজলের মিশ্রণ- সমান পরিমাণে লেবুর রস, শসার রস আর গোলাপজল মিশিয়ে নিন। রাতে ঘুমানোর আগে মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। সবশেষে ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকে সরাসরি লেবুর রস লাগালে জ্বালা করতে পারে। তবে শসার রস আর গোলাপজল থাকায় সেই সমস্যা হবে না। শসার বদলে ঠাণ্ডা আলুর রসও ব্যবহার করতে পারেন।

বেসন, হলুদ আর দুধের পেস্ট- একটা বাটিতে বেসন নিন। তার মধ্যে কাঁচা হলুদবাটা, দুধ আর গোলাপজল মেশান। গোসলের আগে পেস্টটা ত্বকে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে চক্রাকারে হাত ঘুরিয়ে তুলে ফেলুন এবং গোসল সেরে নিন। যাদের ত্বক শুষ্ক, তাঁরা এই মিশ্রণে খানিকটা মধুও মেশাতে পারেন। দুধে অ্যালার্জি থাকলে দই ব্যবহার করুন।

পেঁপে আর মধুর প্যাক- একটা পাকা পেঁপে নিন। ব্লেন্ডারে ১০০ গ্রামের মতো পেঁপের পেস্ট তৈরি করুন। তার মধ্যে খাঁটি মধু মিশিয়ে নাড়ুন। জিনিসটা মুখে ও হাতে মাখিয়ে অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে তুলে ফেলুন।

দই আর টমেটোর প্যাক- টমেটোর রস বের করে নিন। তার সঙ্গে দই মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে মুখে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নিন। টমেটো প্রাকৃতিকভাবে ট্যান রিমুভার হিসেবে আদর্শ। তবে অনেকের অ্যালার্জি হয় টমেটোর রসে। সে ক্ষেত্রে ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।

মসুর ডাল, অ্যালোভেরা আর টমেটো প্যাক- মসুর ডাল বেশ খানিকক্ষণ ভিজিয়ে বেটে নিন। যে পেস্টটা তৈরি হবে তার মধ্যে অ্যালোভেরা আর টমেটোর শাঁস মেশান। মিশ্রণটা মুখ, হাত ও পায়ের পাতায় মাখুন। ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

 

Facebook Comments