fbpx

৮৮ রানে হারিয়েছে ৭ উইকেট ভারত!

ভারতের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে বিপর্যয়ের মুখে রয়েছে ইংল্যান্ড। বিপর্যয় এড়াতে তাদের ভরসা অধিনায়ক জো রুট। ভারতের ৩৬৪ রানের জবাবে দিন শেষে স্বাগতিক দলের সংগ্রহ ছিল ৩ উইকেটে ১১৯। ভারত এগিয়ে ২৪৫ রানে।

৩ উইকেটে ২৭৬ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে ভারত। কেএল রাহুলের সেঞ্চুরির পর আর কেউই বড় স্কোর গড়তে না পারলে ৮৮ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে চার শ রানের আগে গুটিয়ে যায় সফরকারী দল। দ্বিতীয় দিন সকালে আউট হন আগের দিনের সেঞ্চুরিয়ান রাহুল। ১২৯ রান করে ওলি রবিনসনের বলে আউট হন তিনি। আরেক অপরাজিত ব্যাটসম্যান আজিঙ্কা রাহানেও টেকেননি বেশিক্ষণ। ১ রান করে জেমস অ্যান্ডারসনের শিকার হন তিনি।

রিশাভ পান্ট ও রভিন্দ্র জাডেজার ব্যাটে কিছুটা রান বাড়িয়ে নেন সফরকারী দল। ৪৯ রান যোগ করেন এই দুই ব্যাটসম্যান। ৩৭ রান করে আউট হন পান্ট।

অন্যপ্রান্তে জাডেজা ৪০ রান করে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন। ভারত গুটিয়ে যায় ৩৬৪ রানে। অ্যান্ডারসন ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় বয়ষ্ক ক্রিকেটার হিসেবে ইনিংসে পাঁচ বা ততোধিক উইকেট শিকারের রেকর্ড গড়েন।

৩৯ বছর ১৪ দিন বয়সে অ্যান্ডারসন ৫ উইকেট নেন। তার চেয়ে বেশি বয়সে ৫ উইকেট শিকারের রেকর্ড আছে সাউথ আফ্রিকার জেফ চাবের। ৪০ বছর ৮৪ দিন বয়সে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১৯৫১ সালে তিনি ইনিংসে ৫ উইকেট নেন। রবিনসন ও মার্ক উড ২টি করে উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে স্বস্তিতে ছিল না ইংল্যান্ডও। ১৪ ওভার টিকে ছিলেন তাদের দুই ওপেনার ররি বার্নস ও ডমিনিক সিবলি। ১৫তম ওভারে দুই বলে বার্নস ও হাসিব হামিদকে আউট করে ইংল্যান্ডকে বড় ধাক্কা দেন মোহাম্মদ সিরাজ। ২৩ রানে ২ উইকেট হারায় স্বাগতিক দল।

এরপর বার্নস ও জো রুট মিলে কিছুদূর টেনে নিয়ে যান দলকে। ৮৫ রানের জুটির পর ৪৯ রান করে আউট হন বার্নস। তাকে ফেরান মোহাম্মদ শামি।

বাকি সময়ে রুট ও জনি বেয়ারস্টো আর কোনো উইকেট যেতে দেননি। রুট ৪৮ ও বেয়ারস্টো ৬ রানে অপরাজিত আছেন। ইংল্যান্ড এখনও পিছিয়ে ২৪৫ রানে।

Facebook Comments