fbpx

মাষ্টার শেফ প্রতিযোগীতায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ারের বাজিমাত

মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ায় দেশীয় রান্নার প্রতিনিধিত্ব করে বিশ্বকে মুগ্ধ করেছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ার চৌধুরী। মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) মাস্টারশেফ-২০২১ এর গ্র্যান্ড ফিনালের ফল ঘোষণা করা হয়েছে। এতে তৃতীয় হয়েছেন তিনি। আর প্রথম হয়েছেন জাস্টিন নারায়ণ।

মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়া’র ফাইনাল রেজাল্টের আগেই লাখ লাখ বাঙালির মন জয় করে নিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি ফেসবুক-টুইটার-ইনস্টাগ্রামসহ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়ে বাংলাদেশে বহুল প্রচলিত – এবং একই সঙ্গে প্রচণ্ড জনপ্রিয় – কয়েক পদের রান্নার ভিডিও, আর সঙ্গে পরিচিতি পেয়ে যান এসবের রাঁধুনি।

লাউ চিংড়ি, বেগুন ভর্তা, খিচুড়ি, মাছ ভাজা, আমের টক, খাসির রেজালা – মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার মতো আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় একের পর এক এমন মুখরোচক খাবার রান্না করে বিচারকসহ বিভিন্ন ভাষাভাষীর দর্শকের নজর কাড়েন এই শেফ।

প্রতিযোগিতার সাফল্য দিয়ে বিশ্বজুড়ে তিনি বাংলাদেশিদের ভালোবাসা এবং সমর্থন অর্জন করেছেন। এই উদীয়মান তারকা ভবিষ্যতে বাংলাদেশি খাবারের জন্য একটি রান্নার বই লেখার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন।

কিশোয়ার চৌধুরীর বাবা বাংলাদেশি। তিনি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। কিশোয়ার চৌধুরীর জন্ম ও বেড়ে ওঠা অস্ট্রেলিয়াতেই। পেশায় কিশোয়ার একজন ‘বিজনেস ডেভেলপার’। দুই সন্তানের মা কিশোয়ার সন্তানদের জন্য বাংলাদেশি খাবার রান্না করতে গিয়ে পরিবারের কাছ থেকেই শিখেছেন নানান রেসিপি।

Facebook Comments