fbpx

দক্ষিণ আফ্রিকার সহিংসতায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭২

দক্ষিণ আফ্রিকায় সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমাকে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে সহিংস বিক্ষোভে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭২ জনে। এদের মধ্যে সোমবার রাতে একটি শপিং সেন্টারে পদদলিত হয়ে নিহত হওয়া ১০জনও রয়েছেন।গত সপ্তাহে শুরু হওয়া সহিংসতা বন্ধে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

জোহানেসবার্গসহ বিভিন্ন শহরে এমন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেনা মোতায়েন করেছেন প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাপোসা।  পুলিশ জানায়, তারা ১২ ব্যক্তিকে দাঙ্গার সন্দেহভাজন উসকানিদাতা বলে চিহ্নিত করেছে। দাঙ্গা, লুটপাট ও সহিংসতার অভিযোগে এক হাজার ২৩৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

চলমান পরিস্থিতিকে তার দেশে ১৯৯০ সালের পর থেকে হওয়া সহিংসতাগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জঘন্য বলে আখ্যা দেন প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাপোসা। সহিংসতায় দেশটিতে অগ্নিসংযোগ, মহাসড়ক অবরোধ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গুদাম ঘর লুটপাটের ঘটনা ঘটছে।

১৫ মাসের কারাদণ্ডাদেশ পাওয়ার পর গত বুধবার পুলিশে ধরা দেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমা (৭৯)। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। আদালত অবমাননার দায়ে গত ২৯ জুন জুমাকে এই কারাদণ্ড দেন আদালত। ওই ঘটনার পর তার নিজ প্রদেশ কাওয়াজুলু নাতালে (কেজেডএন) বিক্ষোভের সূত্রপাত হয়।

বিজনেস লিডারশিপ দক্ষিণ আফ্রিকার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বুসিসিওয়ে মাভুসো জানান, ২০০টির বেশি শপিং মল সোমবার সন্ধ্যা লুটপাট করা হয়েছে। এটিএম বুথ ভেঙে ফেলা হয়েছে। রেস্তোরাঁ, মদের দোকান ও কাপড়ের দোকানও বাদ যায়নি। কয়েকজন দাঙ্গাকারীকে গ্রেফতারে পুলিশকে সহযোগিতা করছে সেনাবাহিনী।

 

Facebook Comments