fbpx

দেশে প্রথমবারের মতো লো-সালফারযুক্ত জ্বালানি আমদানি

ইন্টারন্যাশনাল মেরিটাইম অর্গানাইজেশন (আইএমও) এর নির্দেশনা অনুযায়ী ০.৫ শতাংশ মাত্রার সালফারসমৃদ্ধ ১৫ হাজার টন জ্বালানি নিয়ে চট্টগ্রাম বন্দরে এসেছে ‘এমটি টিএমএন প্রাইড’ জাহাজ।  এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো লো সালফারযুক্ত জ্বালানি আমদানি করেছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি)।  ফলে দেশের সমুদ্রবন্দরে আন্তর্জাতিক মানের বন্দরের সমমানের জ্বালানি তেল সংগ্রহের সুবিধা নিশ্চিত হবে।

তেলবাহী জাহাজটি সোমবার সকালে চট্টগ্রাম বন্দরের ডলফিন জেটিতে ভিড়েছে। এ উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিপিসি। এতে অতিথি ছিলেন বিপিসির চেয়ারম্যান সামছুর রহমান।

আইএমও ০.৫ শতাংশ মাত্রার সালফারসমৃদ্ধ তেল ব্যবহারের জন্য সংস্থাটির সদস্যভুক্ত দেশগুলোর গত ছয় বছর আগে নির্দেশনা দেয়। যেটি চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে বিশ্বব্যাপী কার্যকর হয়। এই নির্দেশনার অংশ হিসেবে বিপিসি লো সালফার তথা ০.৫ শতাংশ মাত্রার সালফারসমৃদ্ধ তেল আমদানি শুরু করেছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিপিসির পরিচালক (অপারেশন ও পরিঃ/বিপণন) সৈয়দ মেহদী হাসান, ঊর্ধ্বতন মহাব্যবস্থাপক (বাঃ ও অপাঃ) মো. আবু হানিফ, পদ্মা অয়েল কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদুর রহমান, মেঘনা অয়েল কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মীর ছাইফুল্লাহ-আল-খালেদ, যমুনা অয়েল কোম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গিয়াস উদ্দিন আনসারী, বাংলাদেশ বাঙ্কার সাপ্লাইয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মিজানুর রহমান মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক আবদুল রাজ্জাক প্রমুখ।

শূন্য দশমিক ৫ (০.৫) শতাংশ সালফার কন্টেন্টযুক্ত ফার্নেস অয়েল সরবরাহের জন্য পদ্মা, মেঘনা ও যমুনা অয়েল কোম্পানি লিমিটেডের সঙ্গে বাংলাদেশ বাঙ্কার সাপ্লাইয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিবিএসএ) সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলোর চুক্তি হয়।
প্রথম দফা আমদানির পর দ্বিতীয় দফায় ছয় মাসের জন্য সালফারসমৃদ্ধ তেল সরবরাহের জন্য প্রায় ১২ লাখ টন তেল আমদানির উদ্যোগ নিয়েছে সরকারি সংস্থা বিপিসি।

 

Facebook Comments