fbpx

লাখো মানুষের ৫০ বছরের দুর্ভোগ কমিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা : পলক

নাটোর-বগুড়া মহাসড়ক সম্প্রসারণ কাজ উদ্বোধন করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। 

এ সময় তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের যোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের অপর কোনও রাজনৈতিক দলের নেতাদের মতো ভোট আদায়ে মিথ্যা আশ্বাস দেন না। আর তাই করোনা মহামারির মধ্যেও নাটোর-বগুড়া মহাসড়ক সম্প্রসারণে বিপুল পরিমাণ অর্থ বরাদ্দ দিয়েছেন। এর মধ্য দিয়ে তিনি রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা বিভাগের লাখো মানুষের ৫০ বছরের দুর্ভোগ কমিয়েছেন।

শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সিংড়া উপজেলার খেজুরতলা মোড় থেকে শেরকোল পর্যন্ত মহাসড়ক প্রশস্তকরণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। সড়ক ও জনপথ অধিদফতর কাজটি বাস্তবায়ন করছে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পলক আরও বলেন, প্রায় ৫০ বছর আগে চালু হওয়া নাটোর-বগুড়া সড়ক দিয়ে প্রতিনিয়তই রাজশাহী, রংপুর ও খুলনা বিভাগের যানবাহন চলাচল করে। এই সড়কে যানবাহনের এতই চাপ যে ১০ মিনিট রাস্তায় জ্যাম হলে হাজারো গাড়ি ও মানুষের দুর্ভোগ শুরু হয়। অথচ রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী যানবাহনের সংখ্যা হিসেবে তা যথেষ্ট চওড়া না। ফলে প্রায়ই এই সড়কে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি ঘটে। এ জন্য যানবাহন মালিক, স্থানীয় জনতাসহ সংশ্লিষ্ট সবাই দীর্ঘদিন ধরে সড়কটির প্রশস্তকরণের দাবি জানিয়ে আসছিল। তবে ভোটের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতারা শুধু আশ্বাস দিয়েছেন। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক সদিচ্ছায় একনেকে সড়ক প্রশস্তকরণে ৭০৭ কোটি ৩১ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়।

ইতোমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, এর ফলে এই সড়ক দিয়ে চলাচলকারী যানবাহন ও মানুষের ৫০ বছরের দুর্ভোগ দূর হবে।

সড়ক ও জনপথ বিভাগ নাটোর অফিসের প্রকৌশলী আব্দুর রহিম জানান, বগুড়ার জাহাঙ্গীরাবাদ থেকে নাটোর শহর পর্যন্ত সাতটি প্যাকেজে এই সম্প্রসারণের কাজ হবে। এরমধ্যে নাটোর অংশে চারটি প্যাকেজে ৩৮৪ কোটি ২৫ লাখ টাকা ব্যয়ে সড়ক প্রশস্ত করা হবে। ইতোমধ্যে নাটোর মাদ্রাসা মোড় থেকে ৩.২০ কিমি চার লেনের কাজ প্রায় ৮১ কোটি টাকা ব্যয়ে শুরু হয়েছে। অপরদিকে ৬৩ কোটি ৬৪ লাখ ৮৯ হাজার টাকা ব্যয়ে এই খেজুরতলা থেকে শেরকোল পর্যন্ত সড়ক ৩৫ ফুট (১০.৩০ মিটার) চওড়া করার কাজ শুরু হলো।

শেরকোল ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফুল হাবীব রুবেলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক শাহরিয়াজ ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ওহিদুর রহমান প্রমুখ।

Facebook Comments