fbpx

রিয়াল মাদ্রিদ ক্লাবে করোনার হানা

লা লিগা শিরোপা উৎসব শেষে ছুটি পেয়েছিলেন রিয়াল মাদ্রিদ খেলোয়াড়রা। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে পেরেছেন বেশ কয়েকদিন। এই সময়েই ঘটেছে বিপত্তি! দলের যোগ দেওয়া আগমুহূর্তে করোনাভাইরাস হানা মেরেছে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নদের ঘরে। প্রাণঘাতী ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন দলটির স্ট্রাইকার মারিয়ানো।

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রস্তুতির আগে রুটিনমাফিক রিয়ালের সব ফুটবলারের করোনা টেস্ট করা হলে মারিয়ানো দিয়াজের শরীরে করোনাভাইরাস পজিটিভ শনাক্ত হয়। এ বিষয়ে রিয়াল মাদ্রিদ থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে।

এখন তিনি বাড়িতেই থাকবেন এবং কোয়ারেন্টিনের নিয়ম-কানুন মেনে চলবেন। এক বিবৃতিতে রিয়াল জানিয়েছে, ‘কোভিড-১৯ পরীক্ষার পর আমাদের মূল দলের খেলোয়াড় মারিয়ানোর শরীরে পজিটিভ পাওয়া গেছে।’ আক্রান্ত হলেও ২৬ বছর বয়সী স্প্যানিশ স্ট্রাইকারের শরীরে ‘কোনও উপসর্গ নেই’ এবং তিনি ‘ভালো আছেন’।

আক্রান্ত রিয়াল স্ট্রাইকার দিয়াজ জানিয়েছেন, করোনা আক্রান্ত হলেও গত কয়েকদিন ধরে রিয়ালের কোনো ফুটবলার কিংবা কোনো স্টাফের সংস্পর্শে আসেননি। তিনি স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে গেছেন।

তাই দিয়াজ ছাড়া রিয়াল মাদ্রিদের বাকি সব ফুটবলারই মঙ্গলবার ট্রেনিংয়ে ফিরেছেন। আগামী আগস্টের ৭ তারিখ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডে ফিরতি লেগে ম্যানসিটির মুখোমুখি হবে জিদানের শিষ্যরা।

১৯ জুলাই লিগের শেষ ম্যাচে রিয়ালের স্কোয়াডে ছিলেন মারিয়ানো। যদিও লেগানেসের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র হওয়া ম্যাচে বেঞ্চেই থাকতে হয়েছিল ২০১৮ সালে লিওঁ থেকে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে যোগ দেওয়া এই স্ট্রাইকারকে। এবারের মৌসুমে তিনি খেলেছেন ৭ ম্যাচ, যার মধ্যে মার্চে বার্সেলোনার বিপক্ষে রিয়ালের পাওয়া ২-০ গোলে জেতার পথে লক্ষ্যভেদ করছিলেন মারিয়ানো।

ম্যানসিটির বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম লেগে ঘরের মাঠে ২-১ গোলে পিছিয়ে আছে লস ব্লাঙ্কোসরা।

Facebook Comments